যৌন্য মিলনে বাচ্চা হওয়া না হওয়া নিয়ে কিছু টিপস্ Bangla Health Tips 2015

http://www.azkerkhobor.com/যৌন্য-মিলনে-বাচ্চা-হওয়া-ন/
https://www.facebook.com/azkerkhobor
যৌন্য মিলনে বাচ্চা হওয়া না হওয়া নিয়ে কিছু টিপস্ Bangla Health Tips 2015

আমরা সাধারনত যৌন্য মিলনের সময় অনেক ধরনের পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকি যাতে বাচ্চা না হয়। কিন্তু এমন কিছু নিয়ম আছে যা পালন করলে কোন পদ্ধতির প্রয়োজন পরবেনা। কখন যৌন্যমিলন করলে বাচ্চা হয় এবং কখন হয়না এ বিষয়টি আমরা অনেকেই জানিনা। সাধারনত, মেয়েদের মাসিক শুরু হওয়ার একটা নিদির্ষ্ট বয়স থাকে। বিশেষ করে লবনাক্ত এলাকার মেয়েদের মাসিক একটু তাড়াতাড়ি শুরু হয়। মাসিক শুরু হওয়াকালীন মেয়েদের যে রক্তক্ষরন হয় সেটি দূষিত হওয়ার কারনে মেয়েরা সাময়িক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে।
মেয়েদের মাসিকের সময় যৌন্য মিলন করলে গর্ভধারণ হয়না তবে এই সময়টাতে বিরত থাকাই ভালো। মাসিক হওয়ার ১৪ দিনের মাথায় লুটিনাইজিং হরমন ক্ষরনের ৩৬-৩৮ ঘন্টার মধ্যে ডিম্বকোষ নির্গত হয়। ডিম্বকোষ নির্গত হওয়ার ৩৬ ঘন্টার মধ্যে যদি যৌন্য মিলন করা হয়, তাহলে ডিম্বানুর সাথে শুক্রানুর মিলন ঘটে এবং এর ফলে বাচ্চার জন্ম হয়। আর এই ডিম্বকোষটির আয়ু থাকে প্রায় ৩৬ ঘন্টা। ডাক্তারদের মতে, ডিম্বনালিতে প্রবেশের পর শুক্রকোষ প্রায় ৭২ ঘন্টা জীবিত থাকতে পারে। সুতরাং মাসিক হওয়ার ১৪ দিনের মাথায় ২-৩ দিন আগে এবং ২-৩ পরে যৌন্য মিলন করলে বাচ্চা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে প্রায় ৯৯%।
বিজ্ঞানীদের মতে, ডিম্বকোষ নির্গমনের দিনটি বারবার পরিবর্তন হয়, এর জন্য হাতে আরো ২-৩ দিন সময় ধরে রাখতে হবে। হিসাব মতে দেখা যায় যে মাসিক শুরু হওয়ার ৯ দিন আগে এবং শেষ হওয়ার ২০ দিন পরের সময়কে নিরাপদ সময় বলে ধরা হয়ে থাকে। এই সময় যৌন্য মিলন করলে সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা থাকেনা। তবে তথাকথিত বিরল কিছু ঘটনা আছে যেখানে একবারের যৌন্যমিলনেই বাচ্চা হয়।